Home / অনুসন্ধানী রিপোর্ট / বিনিয়োগকারীদের ডিভিডেন্ড নিয়ে আলিফ গ্রুপের নয়-ছয়

বিনিয়োগকারীদের ডিভিডেন্ড নিয়ে আলিফ গ্রুপের নয়-ছয়

ডেইলি শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আলিফ গ্রুপের দুই কোম্পানির ক্যাশ ডিভিডেন্ড না পাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। চলতি বছরের ২৬ জানুয়ারি আলিফ ইন্ডাষ্ট্রিজ এবং আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড ৩০ জুন,২০১৯ সমাপ্ত অর্থবছরের ক্যাশ ডিভিডেন্ড শেয়ারহোল্ডারদের বিতরণ করেছে বলে স্টক এক্সচেঞ্জকে জানিয়েছে। কিন্তু এতোদিন গত হওয়ার পরও অনেক বিনিয়োগকারী ডিভিডেন্ড পায়নি বলে জানা গেছে।

জানা যায়, ৩০ জুন, ২০১৯ সমাপ্ত অর্থবছরের জন্য আলিফ ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড ৩% ক্যাশ ও ৭% স্টক ডিভিডেন্ড দেওয়ার ঘোষণা করে। এছাড়া আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং ২% ক্যাশ ও ৮% স্টক ডিভিডেন্ড দেওয়ার ঘোষণা করে। গত বছরের ১৮ ডিসেম্বর  এ সংক্রান্ত এজিএম অনুষ্ঠিত হয়। এরপর চলতি বছরের ২৬ জানুয়ারি ক্যাশ ডিভিডেন্ড পাঠানো হয়েছে বলে স্টক এক্সচেঞ্জে জানানো হয়। কিন্তু কোম্পানির ক্যাশ ডিভিডেন্ড অনেক বিনিয়োগকারী পায়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে মো: সোহরাব হোসেন (বিও আইডি: 1201470000021711) নামে কোম্পানির একজন শেয়ারহোল্ডার ডেইলি শেয়ারবাজার ডটকমকে জানান, গত বছরের ডিসেম্বরে কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) ডিভিডেন্ড অনুমোদিত হয়। স্টক এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে জানতে পারি যে, কোম্পানিটি ২৬ জানুয়ারি ক্যাশ ডিভিডেন্ড বিতরণ করেছে। পরবর্তীতে ফেব্রুয়ারি মাসে কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করে বলি ক্যাশ ডিভিডেন্ড পাইনি। কোম্পানির পক্ষ ‍থেকে জানানো হয়, তারা ক্যাশ ডিভিডেন্ড অলিম্পিক কুরিয়ার সার্ভিসে পাঠিয়েছে সেখানে যোগাযোগ করতে বলে। আমি সেখানে যোগাযোগ করি; কুরিয়ার সার্ভিস থেকে বলা হয় দু’এক দিনের মধ্যে ডিভিডেন্ড পাঠিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু পরবর্তীতে ডিভিডেন্ড না পেয়ে পুনরায় যোগাযোগ করি। এবার আমার কাছ থেকে তারা ডিভিডেন্ড ওয়ারেন্ট নাম্বার জানতে চায়। কিন্তু ডিভিডেন্ড ওয়ারেন্টই যেখানে পাইনি সেখানে ওয়ারেন্ট নাম্বার কোথা থেকে দেবো। এভাবে মাসের পর মাস কালক্ষেপণ করে আমাকে ডিভিডেন্ড আজো দেয়নি।

ভুক্তভোগি বিনিয়োগকারী আরো জানান, মাঝখানে কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করলে একজন মহিলা ফোন ধরে ডিভিডেন্ডের জন্য কথা বললে তিনি দুর্ব্যবহার করেন। এরপর করোনা পরিস্থিতির অজুহাত দেখিয়ে আজো পর্যন্ত ডিভিডেন্ড দেওয়া থেকে বঞ্চিত করে রেখেছে।

এ ব্যাপারে কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে চীফ ফিন্যান্সিয়াল অফিসার (সিএফও) মোহাম্মদ হানিফ ডেইলি শেয়ারবাজার ডটকমকে জানান, বিনিয়োগকারীরা অফিসে যোগাযোগ করলে আমরা ডিভিডেন্ড ওয়ারেন্ট দিয়ে দেবো। বিইএফটিএন (বাংলাদেশ ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার নেটওয়ার্ক) এর না পাঠিয়ে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে কেন পাঠানো হলো এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখন থেকে আমরা বিইএফটিএনের মাধ্যমে ডিভিডেন্ড পাঠাবো।

 

ডেইলি শেয়ারবাজার ডটকম/মাজ./নি

Check Also

আইনের তোয়াক্কার করছে না ফ্যামিলিটেক্স বিডি

ডেইলি শেয়ারবাজার রিপোর্ট : কোন রকম আইনের তোয়াক্কার করছেনা পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বস্ত্র খাতের কোম্পানি ফ্যামিলিটেক্স বিডি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *