Home / এক্সক্লুসিভ / ইন্দো-বাংলার ফ্যাক্টরীতে তালা: উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত: ৮টির রেজিষ্ট্রেশন বাতিল

ইন্দো-বাংলার ফ্যাক্টরীতে তালা: উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত: ৮টির রেজিষ্ট্রেশন বাতিল

ডেইলি শেয়ারবাজার রিপোর্ট: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের লাইসেন্সভুক্ত সকল পদের উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত এবং ৮টি পদের রেজিষ্ট্রেশন সাময়িক বাতিল করেছে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।  গত ৭ মার্চ ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর এবং লাইসেন্স অথরিটি (ড্রাগস) এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো: মাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত চিঠি বরিশাল ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের ঔষধ তত্ত্ববধায়কের কাছে প্রেরণ করে। পরবর্তীতে গত ১৬ মার্চ বরিশাল ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর কোম্পানিটির ফ্যাক্টরী তালাবদ্ধ করে দেয়। ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি ঔষধ প্রশাসন অধিপ্তর ইন্দো বাংলার কারখানা পরিদর্শন করে একটি প্রতিবেদন প্রেরণ করেন। পরিদর্শনকালে কারখানায় নিম্নবর্ণিত অব্যবস্থাদি দেখা যায়,

ক) ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের অনুমোদন ব্যতীত কাঁচামাল সংগ্রহ করা হয়।

খ) ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর হতে মূল্য সনদ গ্রহণ ব্যতীত ঔষধ উৎপাদন ও বাজারজাত করা হয়।

গ) মার্কেন্টিং অথরাইজেশন (এমএ) সনদ গ্রহণ ব্যতীত ঔষধ উৎপাদন ও বাজারজাত করা হয়।

ঘ) ঔষধ প্রশাসন অধিপ্তর হতে চূড়ান্ত মোড়ক সামগ্রী অনুমোদন ব্যতীত ঔষধ বাজারজাত করা হয়।

ঙ) ঔষধ প্রশাসন কর্তৃক অনুমোদিত সকল পদের মান-নিয়ন্ত্রণ কাজের জন্য রেফারেন্স স্ট্যান্ডার্ড নাই।

চ) কারখানায় WHO GMP গাইডলাইন অনুসরণ করা হয় না।

ছ) উৎপাদন লাইসেন্স ও পদ রেজিষ্ট্রেশন শর্ত ভঙ্গ করা হয়েছে।

উল্লেখিত অনিয়মের কারণে কোম্পানিটিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়। কিন্তু কারণ দর্শানো নোটিশের জবাব ঔষধ অধিদপ্তরের সন্তোষজনক হয়নি।

তাই নিম্নবর্ণিত লাইসেন্সভুক্ত পদসমূহের রেজিষ্ট্রেশন সাময়িক বাতিল এবং লাইসেন্সভুক্ত সকল পদের উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত করেছে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।

এছাড়া কোম্পানির নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় উল্লেখিত ব্যাচের ঔষধগুলো সরবরাহকৃত সকল চ্যানেল ও স্থান হতে অবিলম্বে প্রত্যাহার করে প্রত্যাহারকৃত ঔষধের পরিমাণসহ তথ্যাদি অধিদপ্তরে দাখিল করার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

 

 

ডেইলি শেয়ারবাজার ডটকম/মাজ./নি

Check Also

ব্যাংকের ডিভিডেন্ড ঘোষণায় নতুন নীতিমালা

ডেইলি শেয়ারবাজার রিপোর্ট: চলমান করোনা সংকটে ব্যাংকের আর্থিক সক্ষমতা এবং ব্যাংকের শেয়ারে বিনিয়োগকারীদের রিটার্নের বিষয়টি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *